গ্লাইকোলাইসিস

যে প্রক্রিয়ায় কোষের সাইটোসল এর বিভিন্ন এনজাইম এর প্রভাবে 6 কার্বন বিশিষ্ট এক অণু গ্লুকোজ কতগুলো ধারাবাহিক প্রাণ রাসায়নিক বিক্রিয়ার মাধ্যমে অক্সিজেনের উপস্থিতিতে 3 কার্বন বিশিষ্ট দুই অনু পাইরূভিক এসিড এবং অক্সিজেনের অনুপস্থিতিতে দুই অনু ল্যাকটিক অ্যাসিড এ পরিণত হয় তাকে গ্লাইকোলাইসিস বলে। গ্লাইকোলাইসিস এর প্রতিষ্ঠাতা তিনজন বিজ্ঞানী EMBDEN, Meyerhof ও parnas। প্রতিষ্ঠাতা তিন বিজ্ঞানীর নাম অনুযায়ী গ্লাইকোলাইসিস কে EMP পাথওয়ে বলা হয়। এই প্রক্রিয়া মূলত কোষের সাইটোপ্লাজমে ঘটে, তাই একে সাইটোপ্লাজমিক শ্বসন ও বলা হয়। সম্পূর্ণ প্রক্রিয়াটি কে তিনটি ধাপে বা পর্যায়ে বিভক্ত করা যায়।

  1. শক্তি বিনিয়োগ পর্ব বা প্রাথমিক পর্যায় (Energy investment phase or priming stage)
  2. বিভাজন পর্ব(Splitting phase)
  3. শক্তি উৎপাদন পর্ব (Energy generation phase)

গ্লাইকোলাইসিস এর ধাপগুলো নিচে আলোচনা করা হলো…

১. শক্তি বিনিয়োগ পর্বঃ

এই ধাপে তিনটি বিক্রিয়া ঘটে

i. এই পর্যায়ে গ্লুকোজ এটিপি হতেএকটি ফসফেট গ্রহণ করে, হেক্সোকাইনেজ/ গ্লুকো কাইনেজ এনজাইমের ক্রিয়ায় গ্লুকোজ 6 ফসফেটে পরিণত হয়। একটি ADP সৃষ্টি হয়। এ বিক্রিয়াটি একমুখী এবং ATP ও Mg²+ নির্ভর।

ii. গ্লুকোজ 6 ফসফেট ফসফো গ্লুকো আইসোমারেজ এনজাইমের ক্রিয়ায় ফ্রুক্টোজ 6 ফসফেট এ পরিণত হয়। বিক্রিয়াটি উভমুখী।

iii. ফ্রুক্টোজট-6-ফসফেট ATP হতে একটি ফসফেট গ্রহণ করে এবং ফসফো ফ্রুক্টো কাইনেজ এনজাইমের ক্রিয়ায় ফ্রুক্টোজ 1,6-বিস-ফসফেট ও একটি ADP সৃষ্টি হয়। এ বিক্রিয়াটি একমুখী এবং ATP ও Mg²+ নির্ভর।

২. বিভাজন পর্বঃ

iv. ফ্রুক্টোজ 1,6-বিস- ফসফেট aldolase এনজাইমের ক্রিয়ায় ভেঙে এক অণু ফসফোগ্লিসারঅ্যালডিহাইড (তিন কার্বন বিশিষ্ট ) এবং এক অণু ডাইহাইড্রোক্সি এসিটোন ফসফেট (তিন কার্বন বিশিষ্ট ) সৃষ্টি হয়। বিক্রিয়াটি দ্বিমুখী। ফসফোট্রায়োজ আইসোমারেজ এনজাইমের ক্রিয়ায় গ্লিসারঅ্যালডিহাইড এবং ডাইহাইড্রোক্সি এসিটোন একটি অন্যটিতে পরিবর্তিত হতে পারে। ফলে এক অণু গ্লুকোজ হতে 2 অনু গ্লিসার অ্যালডিহাইড 3 ফসফেট পাওয়া যায়।

৩. শক্তি উৎপাদন পর্বঃ

v. থ্রি ফসফোগ্লিসার অ্যালডিহাইড এক অনু অজৈব ফসফেট গ্রহণ করে , NAD এর উপস্থিতি তে এবং গ্লিসারঅ্যালডিহাইড-3-ফসফেট ডি হাইড্রোজেনাজ এনজাইমের ক্রিয়ায়, 1,3-বিস-ফসফোগ্লিসারিক এসিডে পরিণত হয। এ বিক্রিয়ায় NADH+H± সৃষ্টি হয়। বিক্রিয়াটি দ্বিমুখী। Iodoacetate এবং arsenate ফসফো ইনল পাইরূভেট-3-ফসফেট ডি হাইড্রোজেনাজ এনজাইমের ক্রিয়ায় বাধা দেয় (inhibitor)।

vi. 1,3 বিস ফসফোগ্লিসারিক অ্যাসিড ফসফোগ্লিসারিক অ্যা সিড কাইনেজ এনজাইমের ক্রিয়ায় এক অনু ফসফেট হারিয়ে 3 ফসফোগ্লিসারিক এসিডে পরিণত হয় এবং এটিপি উৎপন্ন করে। বিক্রিয়াটি দ্বিমুখী।

vii. 3 ফসফোগ্লিসারিক এসিড, ফসফোগ্লিসারিক মিউটেজ এনজাইমের ক্রিয়ায় ২- ফসফোগ্লিসারিক এসিড এ পরিণত হয়।

viii. ইনোলেজ এনজাইমের প্রভাবের ২- ফসফোগ্লিসারিক এসিড হতে উচ্চ শক্তির যৌগ ফসফো ইনল পাইরূভেট উৎপন্ন হয়।

ix. ফসফো ইনল পাইরূভেট, পাইরুভিক এসিড কাইনেজ এনজাইমের ক্রিয়ায় পাইরুভিক এসিড এ পরিণত হয়। এ বিক্রিয়ায় এবিপি হতে একটি এটিপি তৈরি হয়। এবং গ্লাইকোলাইসিস প্রক্রিয়ার সমাপ্তি ঘটে।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *